Friday, April 16, 2021

পাইথনে প্রথম প্রোগ্রাম

জানো, কম্পিউটার না খুবই বোকা একটা যন্ত্র। '0' আর '1' ছাড়া সে কিছুই বুঝতে পারে না।তাই কম্পিউটারকে বুঝানোর জন্য বিশেষ পদ্ধতিতে তাকে আদেশ প্রদান করতে হয়। কম্পিউটারের আদেশ করার এই পদ্ধতিকে বলা হয় প্রোগ্রামিং।আজ আমরা প্রোগ্রামিং শেখা শুরু করবো।আজকে আমাদের প্রোগ্রামিং শেখার প্রথম দিন।আজ থেকে আমরা শিখবো প্রোগ্রামিং জগতের জনপ্রিয় একটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ পাইথন। পাইথন সম্পর্কে আগেই একটা আর্টিকেলে বিস্তারিত বলেছি,তাই আর কথা বাড়াতে চাচ্ছি না।

প্রোগ্রামিং করার জন্য আমরা ব্যাবহার করবো পাইথন ৩।তো, শুরু করা যাক।

(কোন কিছু ডাউনলোড বা ইন্সটল করা ছাড়াই সরাসরি প্রোগ্রামিং প্র্যাকটিস করা শুরু করে দিতে চাইলে, তোমার জন্য ভালো হবে অনলাইন কম্পাইলার ব্যবহার করা। এক্ষেত্রে তুমি অনলাইন IDE অথবা এই পাইথন কনসোল ব্যাবহার করতে পারোঃ www.rodro.site/p/console_2.html )


কনসোলটা চালু হবার পর সেখানে চট করে লিখে ফেলো print("Hello World") প্রোগ্রামটির আউটপুট দেখতে রান বাটনে ক্লিক করো।
print("Hello World")


কী দেখলে! Hello World হ্যাঁ তুমি লিখে ফেলেছো তোমার প্রথম প্রোগ্রাম।
হ্যালো ওয়ার্ল্ড


এই তুমি কি জানো, বিশ্বের বড় বড় প্রোগ্রামাররাও তোমার মতো তাদের প্রথম প্রোগ্রাম শুরু করেছিলো পৃথিবীকে হ্যালো জানিয়ে।

লক্ষ্য করছো কি আমরা print() লিখেছিলাম।এই print() হচ্ছে একটি ফাংশন,এর ভিতরে যা লেখা হবে তাই সে প্রিন্ট করবে।ফাংশন নিয়ে পরবর্তী আর্টিকেল গুলোতে আমরা আরো বিস্তারিত আলোচনা করবো।

মনে আছে কি! print() ফাংশনটার ভিতরে আমরা পৃথিবীকে হ্যালো জানিয়েছিলাম "Hello World" বলে। লক্ষ্য করো,আমরা এই লেখাটা লিখেছি ডাবল কোটেশন মার্ক-এর ভিতরে এবং সেটাকে প্রিন্ট করেছি। এখানে Hello World লেখাটা হলো একটি স্ট্রিং (String) ।আমরা যখন ডেটা টাইপ নিয়ে আলোচনা করবো, তখন আমরা স্ট্রিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবো। কারণ স্ট্রিং হলো একটি ডেটা টাইপ। আপাতত আমরা শুধু এটুকুই জানবো সিঙ্গেল কোটেশন(' ') বা ডাবল কোটেশন মার্ক(" ")-এর ভেতরে যে লেখা বা Text থাকে, তাকে স্ট্রিং বলে।

আরো একটা কথা, প্রতি লাইন কোডকে কিন্তু স্টেটমেন্ট বলা হয় অর্থাৎ আমরা এখানে যে এক লাইন কোড লিখেছি,এটি একটি স্টেটমেন্ট।

প্রোগ্রামিং এর মজা আমরা তখনই পাবো,যখন বুঝতে পারবো প্রোগ্রামিং দিয়ে আসলে সব করা যায়।চলো না প্রোগ্রামিং করে একটু হিসাব-নিকাশ করা যাক!
print(2 + 1)

print(3 * 8)

print(4 * 8)

print(9 / 3)

print((2 * 3) + ((3 * 3) + (9 * 9)) * 5)

print(4 * 4)

print(16 / 3)

print((2 * 4) + ((3 * 3) + (9 * 10)) * 5)


দেখলে! কম্পিউটার কতো চমৎকার ভাবে হিসাব নিকাশ করতে পারে।আজ থেকে আমরা কম্পিউটারের বস, কম্পিউটার এখন আমাদের কথা শুনে।

পরবর্তী আর্টিকেলটিতে আমরা জানবো ভ্যারিয়েবল ও ডেটা টাইপ সম্পর্কে।

প্রোগ্রামিং ভালোবাসি আর ধর্মকে সাথে করে বাঁচতে চাই।অন্যায় আর অধর্মকে ঘৃণা করি।বইয়ের সাথে আমার প্রচুর ভাব। আমার প্রফেশনাল পরিচয় হলো "কম্পিউটারের পোকা"।

0 Comments: